সর্বশেষ সংবাদ

ক্যাসিনোকাণ্ডে নায়িকারা জড়িত থাকলে ব্যবস্থা

বিনোদন: রাজধানীসহ সারা দেশে এখন সবচেয়ে আলোচিত বিষয় হচ্ছে ক্যাসিনো অপরাধ। সম্প্রতি ক্যাসিনো অভিযানে বেরিয়ে আসছে কোটি কোটি টাকা, বিপুল পরিমাণ মাদক,অবৈধ অস্ত্র, আমদানি নিষিদ্ধ সিগারেটসহ চাঞ্চল্যকর নানা তথ্য।

ক্যাসিনো অভিযানে বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর তথ্যের এখন সবচেয়ে বেশি সমালোচিত হচ্ছেন বিভিন্ন অভিনেত্রী ও নতুন মডেলরা।

অভিযোগ রয়েছে বিভিন্ন নায়িকা বা মডেলদের ব্যবহার করতো আটক ক্যাসিনো মালিক ও টেন্ডারবাজ জি কে শামীম।

গোয়েন্দা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ক্যাসিনো মালিক ও টেন্ডারবাজ জি কে শামীম বলেছেন, টেন্ডার পেতে চলচ্চিত্রের নায়িকাদের ব্যবহার করতেন তিনি! যদিও গণমাধ্যমে কোনো নায়িকার নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে আকার-ইঙ্গিতে উঠে আসছে নায়িকা রত্না, মিষ্টি জান্নাত, রাহা তানহা খান ও শিরিন শীলার নাম।

তবে এখন প্রশ্ন হলো এসব নায়িকা বা মডেলারা কী? আসলেই ক্যাসিনো ব্যবসা বা বিভিন্ন টেন্ডার ব্যবসায় জড়িত?

এ বিষয়ে শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, এখনো পুলিশ স্পষ্টভাবে কোনো মডেল বা নায়িকার নাম প্রকাশ করেনি। তবে গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে খবর প্রকাশ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, চলচ্চিত্রের কোনো শিল্পী এসব কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাই বিষয়টি প্রমাণ না হওয়ার পর্যন্ত নিউজ করা থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানান তিনি।

এদিকে নিজের নাম জড়ানোয় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নায়িকা মিষ্টি জান্নাত। কোনো প্রমাণ ছাড়া জিকে শামীমের সঙ্গে তাকে জড়ানো একেবারেই অনুচিত ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের জন্য ভিডিও প্রমাণ চেয়েছেন মিষ্টি।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘আমি কখনই এসব কাজে জড়িত ছিলাম না। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা রটানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘জিকে শামীম কে? তাকে আমি চিনি না। তার সঙ্গে আমার কখনও দেখাও হয়নি।’

তার বিরুদ্ধে সম্পূর্ণ বানোয়াট গল্প ছড়ানো হচ্ছে দাবি করে মিষ্টি জান্নাত বলেন, যারা এ অভিযোগ করছেন তাদের তা ভিডিওসহ প্রমাণ দিতে হবে। আর তা দিতে না দিতে পারলে মিথ্যা অপবাদ দেয়ার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করব। আইনের দ্বারস্থ হব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *